Thursday, 24/8/2017 | 7:01 UTC+6
দৈনিক বাংলাদেশ

ধোবাউড়ায় যৌতুকের কারনে গৃহবধুর আঙ্গুল কর্তন করে নির্যাত চালায় পাষন্ড স্বামী :

যৌতুকের টাকার জন্য স্ত্রীকে এলো পাথারি কুপিয়ে বুক, হাত, মাথায় জখম করে আঙ্গুল কর্তন করার চাঞ্চল্যকর ঘটনার সংবাদ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া উপজেলার গামারীতলা গ্রামে।ঘটনাটি ঘটিয়েছে ডালার পাড় গ্রামের হযরত আলীর ছেলে লিটন(৩২)।লিটন প্রেম করে গামারীতলা গ্রামের প্রবাসী আব্দুল কুদ্দুছের মেয়ে খালেদা (২৪) কে ৬ বছর পুর্বে বিয়ে করে।বিয়ের পর একটি ছেলে সন্তানও হয়।বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য গৃহবধু খালেদা খাতুনকে পাষন্ড স্বামী লিটন নির্যাতন করে আসছে।এনিয়ে গ্রাম্য শালিস হয়েছে কয়েক বার। অবশেষে স্বামী একতরফা ভাবে ডিবোর্স দিবে বলে স্ত্রীকে বাপের বাড়ীতে পাটিয়ে দেয়।বুধবার রাতে মেরে ফেলার ভয়ে খালেদা খাতুন তার পিত্রালয়ে বাবার বসত ঘড়ে মার সাথে রাত্রি যাপন করে।পাষন্ড স্বামী লিটন রাতে স্ত্রী খালেদাকে মেরে ফেলার জন্য শশুর বাড়ীতে উৎ পেতে থাকে।কাক ডাকা ভোরে খালেদার মা লিটনের শ্বাশুরী প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হলেই উৎ পেতে থাকা লিটন ঘরে প্রবেশ করে তার স্ত্রী খালেদাকে এলো পাতারি কুপিয়ে বুক হাত,মাথায় জখম করে অাঙ্গুল কেটে মাটিতে ফেলে দেয়। মুমুর্ষ অবস্থায় খলেদা খাতুনকে ধোবাউড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার ময়মনসিংহ- মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। বর্তমানে খালেদা খাতুন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতারে মৃর্ত্যুর সাথে পান্জা লড়ছে।এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। এ ব্যাপারে আজ শুক্রবার সকালে খালেদার জেটা মোহাম্মদ আলী জানান খালেদা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ নং ওয়াডে মুমুর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছে,চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্থ থাকায় মামলা করতে বিলম্ব হচ্ছে।

About

Comments

comments

সম্পাদক
মফিজুল ইসলাম অলি
ফুলপুর, মোবা: 01712344037

সহকারী সম্পাদক
01. আনছারুল হক রাসেল
হালুয়াঘাট, মোবা: 01750040090
02. শাহ্‌ মোঃ নাফিউল্লাহ সৈকত
ফুলপুর, মোবা: 01711129901

প্রকাশক
রাকিবুল ইসলাম রাকিব
নালিতাবাড়ী, মোবা: 01715560895

বার্তা সম্পাদক
রফিকুল ইসলাম রবি
ধোবাউড়া, মোবা: 01911415636