Thursday, 19/10/2017 | 4:24 UTC+6
দৈনিক বাংলাদেশ

ধোবাউড়ায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রা ৫০ শয্যায় উন্নীত হলেও ডাক্তার ও জনবলের অভাবে চিকিৎসা সেবা চালু হচ্ছে না।

ধোবাউড়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি, ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রাটি ৫০ শয্যায় উন্নীত হলেও ডাক্তার ও জনবলের অভাবে সেবা কার্যক্রম চালু হচ্ছে না। ফলে উপজেলার ২লক্ষাধিক মানুষ চিকিৎসা সেবা হতে বঞ্চিত হচ্ছে। বিগত ২০১৩খ্রিঃ ১লা সেপ্টেম্বর ৫০ শয্যা কমপ্লেক্রাটি আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হলেও ৪ বছরেও কোন ডাক্তার ও জনবল না দেওয়ায় কোটি কোটি টাকার আসবাবপত্র ও সরঞ্জামাদি অবহেলায় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৫০ শয্যা ভবনটি অযত্বে অবহেলায় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে । অন্যদিকে ৩১টি শয্যা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্রো ৯ জন ডাক্তার থাকার কথা থাকলেও মাত্র ২জন মেডিকেল অফিসার একজন গাইনী কনসালটেন্ট ১জ ডেন্টাল চার্জন দিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এতে প্রতিদিন বিভিন্ন বিভাগে আসা ৩ থেকে ৪শত রোগীর সেবা দেওয়া কিছুতেই সম্ভব হচ্ছে না। ডাক্তাদের অনুপস্থিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রাটি প্রায় শূন্য হয়ে যায়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো ভর্তিকরা রোগীদের ওয়ার্ডে রাতের বেলায় একজন চিকিৎসক কর্মরত থাকলেও দিনের বেলায় রোগীদের দেখা শুনার করার জন্য প্রায় সময়ই ডাক্তার থাকে না। অভিযোগ রয়েছে ডেন্টাল বিভাগের ডাক্তার রুবি আক্তার মাসে ১/২দিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো এসে হাজিরা দিয়ে চলে যাওয়ায় ডেন্টাল রোগীদের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাক্তার ওয়ায়েজ উদ্দিন ফরাজী জানান ৫০ শয্যার সহ ৩১ শয্যার ডাক্তার ও জনবল পেলে শতভাগ স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া সম্ভব হবে। তিনি বলেন ১১৭টি পদের মধ্যে ৮৭জনের কর্মরত থাকলেও এর মধ্যে ১১ জনকে প্রেষনে নিয়ে যাওয়া সার্বিক স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। এ ব্যাপারে তিনি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে বার বার চিঠি দিয়েও কোন ফলাফল পাচ্ছেন না।

About

Comments

comments

সম্পাদক
মফিজুল ইসলাম অলি
ফুলপুর, মোবা: 01712344037

সহকারী সম্পাদক
01. আনছারুল হক রাসেল
হালুয়াঘাট, মোবা: 01750040090
02. শাহ্‌ মোঃ নাফিউল্লাহ সৈকত
ফুলপুর, মোবা: 01711129901

প্রকাশক
রাকিবুল ইসলাম রাকিব
নালিতাবাড়ী, মোবা: 01715560895

বার্তা সম্পাদক
রফিকুল ইসলাম রবি
ধোবাউড়া, মোবা: 01911415636